ক্যাম্পাস

দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় রাবি ছাত্রলীগের ৪ নেতা বহিষ্কার

বিজ্ঞপ্তিতে এই চারজনের বিরুদ্ধে কেন পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তার লিখিত জবাব আগামী সাত দিনের মধ্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দপ্তর সেলে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে ছাত্রলীগ নেতাদের অবস্থান। ছবি: সংগৃহীত

শৃঙ্খলা ও মর্যাদা পরিপন্থী কার্যকলাপে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) চার ছাত্রলীগ নেতাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম পান্থ সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এই চার ছাত্রলীগ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়। 

বহিষ্কার হওয়া ছাত্রলীগ নেতারা হলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সহ সভাপতি শাহিনুল সরকার ডন, শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নিয়াজ মোর্শেদ, শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান অপু এবং শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাবিরুজ্জামান রুহুল।

বিজ্ঞপ্তিতে এই চারজনের বিরুদ্ধে কেন পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তার লিখিত জবাব আগামী সাত দিনের মধ্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দপ্তর সেলে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার রাতে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলের গেস্ট রুমে বসাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নিয়াজ মোর্শেদের কর্মী ও অনুসারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সমর্থক ও কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। সেদিন রাত ১১টা থেকে রাত আড়াইটা পর্যন্ত ছাত্রলীগের দু'পক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। গত সোমবার রাতে নিয়াজ মোর্শেদ হলে প্রবেশ করলে আবারও অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। 

এদিকে ছাত্রলীগের দু'পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় তিন সদস্যের একটি 'উচ্চতর কমিটি' গঠন করেছে হল প্রশাসন। হলের আবাসিক শিক্ষক ড. অনুপম হীরা মণ্ডলকে তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে। বাকি দুজন সদস্য হলেন- আবাসিক শিক্ষক ড. মো. ফারুক হোসেন ও তানজিল ভূঞা। এছাড়া সভায় ওই হলের নিরাপত্তাপ্রহরীকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্তদের অবিলম্বে ছাত্রত্ব বাতিল ও গ্রেপ্তারের সুপারিশের সিদ্ধান্ত নেয় হল প্রশাসন।

Comments