ইসরায়েলে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালানোর দাবি হুতিদের

হুতিদের সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি বলেছেন, ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে এটা তাদের তৃতীয় অভিযান এবং এ ধরনের আরও অভিযান চালানো হবে।
হুতিদের সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি। ছবি: এক্স (সাবেক টুইটার) থেকে নেওয়া

একদিকে ফিলিস্তিনি সংগঠন হামাসের সঙ্গে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ করছে ইসরায়েল, অপরদিকে লেবানন সীমান্তে দেশটির সংগঠন হিজবুল্লাহর সঙ্গে চলছে গোলা বিনিময়। এরমধ্যেই এবার ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে 'বহু সংখ্যক' ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র এবং ড্রোন হামলা চালানোর দাবি করেছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা।

আজ মঙ্গলবার বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

হুতিদের সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি টেলিভিশনে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে এটা তাদের তৃতীয় অভিযান এবং এ ধরনের আরও অভিযান চালানো হবে।

তিনি বলেন, 'ইসরায়েলের আগ্রাসন শেষ না হওয়া পর্যন্ত হুতি বাহিনী বিশেষ অভিযান চালিয়ে যাবে।'

বিবিসি বলছে, আজ দক্ষিণ ইসরায়েলের ইলাত শহরে 'একটি শত্রুপক্ষীয় আকাশযান' অনুপ্রবেশ করলে সাইরেন বেজে ওঠে। পরে লোহিত সাগরের ওপর সেটিকে গুলি করে ভূপাতিত করার কথা জানিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। 

গত সপ্তাহে ইসরায়েল জানায় যে, ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালায়, তবে সেই ড্রোন মিশরের দুটি শহরে বিস্ফোরণ ঘটায়।

এদিকে গাজার পর দক্ষিণ লেবাননে হামলায়ও ইসরায়েল সাদা ফসফরাস ব্যবহার করেছে বলে জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

এটা 'যুদ্ধাপরাধ' বলেও জানিয়েছে সংগঠনটি।

Comments