অপরাধ ও বিচার

পুত্রবধূকে নির্যাতনের অভিযোগে ব্যবসায়ী আটক

ওই বাসভবনের সামনে গেলে আসামিদের নির্দেশ পেয়ে তিন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি একটি লোহার রড নিয়ে ফারহানার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তারা তাকে নির্বিচারে লাথি ও ঘুষি মেরে গুরুতর আহত করেন।
ctg_map_ds
স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

পুত্রবধূকে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের এক ব্যবসায়ী ও পরিবহন মালিককে গ্রেপ্তার করেছে নগরীর পাঁচলাইশ থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, শনিবার মামলা দায়েরের পর মারসা ট্রান্সপোর্ট লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের (এফএসআইবিএল) পরিচালক মর্তুজা সিদ্দিক চৌধুরীকে (৫৫) গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মর্তুজা সিদ্দিক চৌধুরী, তার স্ত্রী রহিমা বেগম (৪৫) ও ছেলে আব্দুল আহাদ মর্তুজার (২৯) বিরুদ্ধে মামলা করেছেন পুত্রবধূ ফারহানা ইয়াসমিন।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সন্তোষ কুমার চাকমা দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'অভিযোগ পেয়ে ওই ব্যবসায়ীকে নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।'

মামলার এজাহারে বলা হয়, ফারাহ ইয়াসমিন ও আব্দুল আহাদ ২০২০ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি বিয়ে করেন। তবে মর্তুজা সিদ্দিকি তাদের বিয়ে মেনে নেননি। পরবর্তীতে ২০২১ সালে পরিবারের সম্মতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে এই দম্পতি আবার বিয়ে করেন। কয়েক মাস পর বাবা-মায়ের প্ররোচনায় আব্দুল আহাদ তাকে তালাক দেন। তালাকের পর আহাদ যোগাযোগ বন্ধ করে দিলে শুক্রবার দুপুরে তিনি নাসিরাবাদে তাদের বাড়িতে যান।

এজাহারে আরও বলা হয়েছে, ওই বাসভবনের সামনে গেলে আসামিদের নির্দেশ পেয়ে তিন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি একটি লোহার রড নিয়ে ফারহানার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তারা তাকে নির্বিচারে লাথি ও ঘুষি মেরে গুরুতর আহত করেন। পরে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে যায়।

Comments