'লিওনেল মিসিং'

সর্বনিম্ন মূল্যে যে টিকিট বিক্রি হয়েছে তাও কিনতে হয়েছে ২৪০ মার্কিন ডলারে।

লিওনেল মেসি আসছেন তাদের আঙিনায়। জানার পর হুহু করে বিক্রি হয়ে যায় প্রায় সব টিকিট। যার মূল্য রীতিমতো আকাশ ছোঁয়া। সর্বনিম্ন মূল্যে যে টিকিট বিক্রি হয়েছে তাও কিনতে হয়েছে ২৪০ মার্কিন ডলারে। বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৮ হাজার টাকা। কিন্তু খেলা তো দূরের কথা দলের সঙ্গেই ছিলেন না মেসি। তাতে প্রচণ্ড হতাশ ভ্যাঙ্কুভার হোয়াইটক্যাপসের সমর্থকরা।

আজ রোববার বাংলাদেশ সময় সকালে মেজর লিগ সকারের (এমএলএস) ম্যাচে কানাডার ক্লাব ভ্যাঙ্কুভার হোয়াইটক্যাপসকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ইন্টার মায়ামি। মেসি ছাড়াও এই ম্যাচে ছিলেন না তারকা ফুটবলার লুইস সুয়ারেজ ও সের্জিও বুসকেতসও। এই তিন তারকা ছাড়া স্কোয়াড সাজান মায়ামি কোচ জেরার্দো তাতা মার্তিনো।

অবশ্য মেসি যে যাচ্ছেন না তা ম্যাচের আগেই জেনে যান ভ্যাঙ্কুভার সমর্থকরা। ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনেই বিষয়টি পরিষ্কার করেন কোচ মার্তিনো। কিন্তু তার আগেই প্রায় ৫০ হাজার সমর্থক টিকিট কেটে ফেলে। মূলত তাদের রোষানলেই পড়েন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

মূলত জার্সিতে মেসির নামে কিছুটা বিকৃত করে ইংরেজি 'মিসিং' শব্দ বানিয়ে দেন স্থানীয় সমর্থকরা। যার বাংলা অর্থ 'নিখোঁজ'। সেই জার্সি পরে মাঠে দেখা যায় বেশ কিছু সমর্থকদের। অনেকেই সেই ছবি আপলোড করেছেন সামাজিক মাধ্যমে। যা মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে অন্তরজালের দুনিয়ায়।

তবে তারকা খেলোয়াড়রা না থাকলেও জয় পেতে সমস্যা হয়নি মায়ামির। রবার্ট টেইলরের নৈপুণ্যে জয় পেয়েছে দলটি। প্রথম গোলটি করার পর লিওনার্দো কাম্পানাকে দিয়ে দ্বিতীয় গোলটি করান এই ফরোয়ার্ড। পরে পেনাল্টি থেকে ভ্যাঙ্কুভারের হয়ে রায়ান গাল্ড একটি গোল শোধ করলেও জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মায়ামি।

Comments

The Daily Star  | English