ফুলপরীকে নির্যাতন: ৫ শিক্ষার্থীর শাস্তি পুনরায় নির্ধারণের নির্দেশ হাইকোর্টের

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থী ফুলপরী খাতুনকে নির্যাতনের দায়ে ৫ শিক্ষার্থী ও সাবেক ছাত্রলীগ কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কারে যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়নি বলে এক পর্যবেক্ষণে জানিয়েছেন হাইকোর্ট।
supreme court
সুপ্রিম কোর্ট ভবন। স্টার ফাইল ছবি

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থী ফুলপরী খাতুনকে নির্যাতনের দায়ে ৫ শিক্ষার্থী ও সাবেক ছাত্রলীগ কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কারে যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়নি বলে এক পর্যবেক্ষণে জানিয়েছেন হাইকোর্ট।

১৯৮৭ সালের প্রাসঙ্গিক বিধানের অধীনে কোনো অপরাধের জন্য কোনো শিক্ষার্থীকে শাস্তি দিতে পারেন ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কমিটি উপাচার্যের সিদ্ধান্ত যাচাই করবে এবং কমিটি উপাচার্যের সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট না হলে নিজেই শাস্তি দেবে।

কিন্তু শৃঙ্খলা কমিটি উপাচার্যের সিদ্ধান্ত ছাড়াই ৫ শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে, যা সংশ্লিষ্ট পদ্ধতির লঙ্ঘন। আজ বুধবার এ সংক্রান্ত একটি রিট আবেদনের শুনানিকালে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব কথা বলেন।

বেঞ্চ বহিষ্কারাদেশ বাতিল করে দিয়েছেন এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে যথাযথ পদ্ধতি বজায় রেখে ৫ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এবং এই আদেশ মেনে ২৩ আগস্টের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

 

Comments