ক্যাম্পাস
ফুলপরীকে নির্যাতন

ছাত্রলীগ নেত্রী সানজিদাসহ ৫ জনকে হল ছাড়ার নির্দেশ

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ফুলপরী খাতুনকে নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি সানজিদা চৌধুরীসহ ৫ জনের হলের সিট বাতিল করে তাদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেত্রী সানজিদা চৌধুরী (বাঁয়ে) ও তাবাসসুম ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ফুলপরী খাতুনকে নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি সানজিদা চৌধুরীসহ ৫ জনের হলের সিট বাতিল করে তাদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

আজ সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশরত্ন শেখ হাসিনা হল প্রশাসনের এক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় হল প্রভোস্ট অধ্যাপক শামসুল আলমসহ হাউজ টিউটররা উপস্থিত ছিলেন।

পরে হলের পক্ষ থেকে এ মর্মে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থী ফুলপরী খাতুনের দায়েরকৃত অভিযোগ তদন্ত কমিটি কর্তৃক প্রমাণিত হওয়ায় দোষীদের বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা গৃহীত হয়েছে।

সানজিদা চৌধুরী ছাড়াও সিট বাতিল হয়েছে ছাত্রলীগের তাবাসসুম ইসলাম, হালিমা আক্তার উর্মি, ইশরাত জাহান মিম এবং মাবিয়া জাহানের।

গত ১২ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের গণরুমে সাড়ে ৪ ঘণ্টা আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগ করেন ফাইন্যান্স বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ফুলপরী খাতুন। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি সানজিদা চৌধুরীর নেতৃত্বে তার অনুসারীরা হলে আটকে রেখে নির্মম নির্যাতন করেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

পরে ১৫ ফেব্রুয়ারি তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, হল প্রভোস্ট ও ছাত্র উপদেষ্টার কাছে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেন।

হল প্রশাসন সেদিনই তদন্ত কমিটি গঠন করে। ৪ সদস্যের কমিটি গতকাল প্রতিবেদন জমা দেয়। ওই প্রতিবেদন আজ হাইকোর্টে জমা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে হল প্রভোস্ট অধ্যাপক শামসুল আলম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'প্রাথমিকভাবে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যেহেতু বিষয়টি হাইকোর্টে রয়েছে। সেখান থেকে আরও নির্দেশনা এলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।'

Comments