সমুদ্রে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে দরপত্র কিনেছে ৭ আন্তর্জাতিক কোম্পানি: নসরুল হামিদ

‘চলতি বছরে আহ্বান করা দরপত্রে দেশের স্বার্থের পাশাপাশি বিনিয়োগকারী কোম্পানির স্বার্থও দেখা হয়েছে।’
বিদ্যুৎ,জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। স্টার ফাইল ছবি

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, এখন পর্যন্ত সাতটি আন্তর্জাতিক কোম্পানি দেশের সমুদ্রে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে অংশ নিতে দরপত্র কিনেছে।

গত মার্চে আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করার পর আজ বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে এ সংক্রান্ত এক সেমিনার শেষে প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, 'বাংলাদেশের সমুদ্রে কাজ করার অন্য অনেকেই আগ্রহ প্রকাশ করেছেন, করছেন। আজকের সেমিনারেও ১৫টির বেশি আন্তর্জাতিক কোম্পানি অংশ নিয়েছে।'

'চলতি বছরে আহ্বান করা দরপত্রে দেশের স্বার্থের পাশাপাশি বিনিয়োগকারী কোম্পানির স্বার্থও দেখা হয়েছে। ফলে আমরা এবারের দরপত্র নিয়ে বেশ আশাবাদী', বলেন প্রতিমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, 'আগের দরপত্রের তুলনায় নতুন দরপত্রে অনেক পার্থক্য। এখন অনেক সুবিধা বেড়েছে। এখন দুই পক্ষের জন্যই লাভজনক চুক্তি করা হচ্ছে।'

'আমরা মধ্যপন্থা অবলম্বন করে একটি পিএসসি (প্রডাক্ট শেয়ারিং কন্ট্রাক্ট) করেছি', বলেন তিনি।

তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, 'জ্বালানির দাম আন্তর্জাতিক বাজারে অস্থির থাকলেও দক্ষিণ এশিয়া অনেক শান্তিপূর্ণ একটি এলাকা। যারা দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের চিন্তা করেন, তারা এগুলো বিবেচনা করবেন। আমাদের সমুদ্রের আশপাশেই গ্যাসের অনেক বড় বাজার আছে। তুলনামূলক এই এলাকায় বিনিয়োগ করা কম ঝুঁকিপূর্ণ। সার্বিক দিক বিবেচনায় আমাদের মনে হচ্ছে, অনেকেই দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশ নেবেন।'

'শেভরন আমাদের দেশে চার বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেছে। এটাই প্রমাণ করে যে, আমাদের দেশ কতটা সম্ভাবনাময়', যোগ করেন তিনি।

আগামী ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দরপত্র জমা দেওয়ার সময় রয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer at sea, on land

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

1h ago